অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তন ঘটিয়ে প্রথম উইম্বলডন জয়ী আলকারাজ। এম ভারত নিউজ

admin

রবিবার ২০ বছরের আলকারাজ যখন প্রথম বার উইম্বলডন ট্রফিটা হাতে নিলেন, তখন জোকোভিচের বয়স ৩৬ এবং তাঁর ঝুলিতে ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম।

0 0
Read Time:3 Minute, 53 Second

২০০৮ সালে প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেছিলেন নোভাক জোকোভিচ। সেই সময় কার্লোস আলকারাজের বয়স ছিল পাঁচ বছর। রবিবার ২০ বছরের আলকারাজ যখন প্রথম বার উইম্বলডন ট্রফিটা হাতে নিলেন, তখন জোকোভিচের বয়স ৩৬ এবং তাঁর ঝুলিতে ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম। সেই জোকোভিচকে হারিয়ে তাঁর থেকে ১৬ বছরের ছোট আলকারাজের মুখে দেখা গেল শিশুর মতো সরল হাসি। যে হাসি বলে দিচ্ছে আরও কিছু গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে দেখা যাবে তাঁকে। ৪ ঘণ্টা ৪২ মিনিটের লড়াইয়ে ১-৬, ৭-৬ (৮-৬), ৬-১, ৩-৬, ৬-৪ গেমে ৩৬ বছরের জোকোভিচকে হারালেন ২০ বছরের আলকারাজ।

রবিবার প্রথম সেটে ১-৬ ব্যবধানে হারের পরেও প্রত্যাবর্তন ঘটালেন আলকারাজ। ম্যাচ শেষে আলকারাজ সদ্য উইম্বলডন হারানো জোকোভিচকে বলেন, “কিছু দিন আগে তুমি বলেছিলে ৩৬ বছরটাই তোমার কাছে নতুন ২৬। তুমি সত্যিই ২৬ বছরের মতো খেলছ।” জোকোভিচ এ বারের উইম্বলডনে সেমিফাইনাল জিতে বলেছিলেন যে, ৩৬ বছরটা মনে হচ্ছে ২৬ বছরের মতো। সেটার কথাই উল্লেখ করেন আলকারাজ। গত বছর ইউএস ওপেন জিতেছিলেন আলকারাজ। এটি তাঁর দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম। গত বছর ফরাসি ওপেনের ফাইনালে তাঁর খেলা দেখতে এসেছিলেন স্পেনের রাজা ষষ্ঠ ফিলিপ। আলকারাজ বলেন, “আমি দুবার সামনে থেকে স্পেনের রাজাকে দেখেছি। সেই দুবারই আমি জিতেছি। তাই চাইব বার বার তিনি আমার খেলা দেখতে আসুন।”

টান টান লড়াইয়ে পাঁচ সেটে খেলা গড়ালেও যে মানের টেনিস তাঁদের কাছে আশা করা হয়েছিল, তা দেখা গেল না। ঘাসের কোর্টে শরীরের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে সমস্যা হচ্ছিল দুই খেলোয়াড়েরই। বেশি সমস্যায় পড়েন জোকোভিচ। গোটা ম্যাচে অন্তত চার বার পিছলে পড়লেন তিনি। তাতে বড় চোট লাগতে পারত তাঁর। পড়লেন আলকারাজও। হাওয়ার জন্যও সমস্যা হচ্ছিল। এই প্রতিবন্ধকতা বেশি ভোগাল জোকোভিচকে। বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড় হলেও গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে স্নায়ুর চাপ ধরে রাখা কঠিন ছিল আলকারাজের পক্ষে। অন্তত প্রথম সেটে সেটাই দেখা গেল। ট্রফির সংখ্যার বিচারে পেশাদার সার্কিটে এখনও দারুণ নজর কাড়া সাফল্য নেই। সবে দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম, প্রথম উইম্বলডন জিতলেন। আসলে নজর কাড়ছে তাঁর টেনিস। ২০২২ সাল আলকারাজের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে টেনিস বিশ্বের। সব থেকে কম বয়সি খেলোয়াড় হিসাবে মায়ামি ওপেন, মাদ্রিদ ওপেন জিতেছেন।

আরও পড়ুন

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Next Post

ফের রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত, নন্দিনীর পর এবার সরলেন প্রেস সচিব। এম ভারত নিউজ

একই কায়দায় গত ফেব্রুয়ারি মাসে রাজ্যপাল তাঁর প্রধান সচিবের পদ থেকে নন্দিনী চক্রবর্তীকে সরিয়ে দিয়েছিলেন। সেই ঘটনা নিয়েও টানাপড়েন চলেছিল নবান্ন-রাজভবনের মধ্যে।

Subscribe US Now

error: Content Protected