BREAKING: প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন অধীর চৌধুরী! এম ভারত নিউজ

admin

শুক্রবার সন্ধ্যায় কংগ্রেসের হাই কমান্ডকে অব্যাহতিপত্র জমা দেন তিনি

0 0
Read Time:3 Minute, 3 Second

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন অধীর চৌধুরী। বহরমপুরের প্রাক্তন সাংসদ অধীর এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী তথা প্রাক্তন ক্রিকেটার ইউসুফ পাঠানের কাছে পরাজিত হন। লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই তাঁর প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ নিয়ে জল্পনা জোরাল হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় কংগ্রেসের হাই কমান্ডকে অব্যাহতিপত্র জমা দেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের এই শীর্ষ নেতা এবদিন বলেন, মল্লিকার্জুন খাড়গে কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গে নতুন কমিটি গঠন করা হয়নি। ফলে তখন থেকেই কার্যত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কংগ্রেসের সভাপতির পদটি শূন্য ছিল। এখন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কংগ্রেসকে নতুন কমিটি গঠন করতে হবে এবং সেই কমিটির সভাপতি কে হবেন তা আপনারা যথাসময়ে জানতে পারবেন।

১০ ফেব্রুয়ারি ২০১০ সাল থেকে অধীরঞ্জন চৌধুরী প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদে আসীন ছিলেন। দীর্ঘ ১০ বছরের বেশি সময় তিনি রাজ্য কংগ্রেসের সভাপতির পদ সামলেছেন৷ লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতাও ছিলেন অধীর৷ এর আগে মুর্শিদাবাদের জেলা সভাপতি পদেই ছিলেন তিনি৷ ২৫ বছর বহরমপুরের সাংসদ থাকায় ওই কেন্দ্রে রীতিমত অপরাজেয় হয়ে উঠেছিলেন অধীর৷ চলতি লোকসভা ভোটে তৃণমূল প্রার্থী ইউসুফ পাঠানের কাছে হেরে যান তিনি৷ এরপরই অধীরকে নিয়ে জল্পনা শুরু হয়৷ যেভাবে ভোটে বামেদের সঙ্গে জোট করে মমতা বিরোধিতায় সরব হয়েছিলেন অধীর তাতে প্রশ্ন উঠেছিল, আদৌ তাঁকে প্রদেশ সভাপতি পদে রাখবে তো হাইকমান্ড ? সেই জল্পনার মাঝেই ইন্ডিয়া জোটের অন্যতম শরিক তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নবান্নে এসে বৈঠকও করেন কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম ৷ আর সেই বৈঠকের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না-কাটতে দলের রাজ্য সভাপতি পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন অধীর৷

আরও পড়ুন

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Next Post

ভোটের পর রাজ্য মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক ২৬ জুন। এম ভারত নিউজ

থাকবেন সমস্ত দফতরের সচিব ও আধিকারিকরাও

Subscribe US Now

error: Content Protected