দেশে ফের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনার ডেল্টা প্লাস প্রজাতি । এম ভারত নিউজ

user
1 0
Read Time:5 Minute, 22 Second

কোভিডের তৃতীয় ঢেউ নিয়ে আতঙ্কের শেষ নেই। তারমধ্যে দৈনিক আক্রান্ত আবারও ৫০ হাজার পার হল। মঙ্গলবারই ৪২ হাজারে নেমে গিয়েছিল। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুধবারের সকালের বুলেটিন বলছে, দেশে একদিনে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ৮৪৮ জন। কোভিডে দৈনিক মৃত্যুও ১৩০০ জনের বেশি। কিন্তু তবে উদ্বেগ বাড়িয়েছে কোভিডের ডেল্টা প্লাস প্রজাতি। মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, কেরল সহ কয়েকটি রাজ্যে করোনা আক্রান্তদের নমুনায় এই প্রজাতির হদিশ মিলেছে। ডেল্টা প্রজাতির চিহ্ন মিলেছে অন্তত ৪০ জনের শরীরে। আর তার থেকেই নতুন করে চিন্তায় পড়েছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

দেশে এখন সংক্রমণের হার তথা কোভিড পজিটিভিটি রেট পাঁচ শতাংশের নীচে নেমেছে। পশ্চিমবঙ্গে মঙ্গলবারই সংক্রমণের হার দেখা গেছে সাড়ে তিন শতাংশ, মহারাষ্ট্রে আরও কমে ১.৭ শতাংশ। দুদিন আগেই মহারাষ্ট্রে কোভিড সংক্রমণের হার ছিল ৩.৯ শতাংশ। সেখান থেকে এক ধাক্কায় এতটা কমে গেছে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সংক্রমণের হার তথা পজিটিভিটি রেট কমে যাওয়া মানে হল বেশিজনের মধ্যে ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াবে না। এর থেকেই একটা ধারণা করা যায় যে কোভিডের সেকেন্ড ওয়েভ শেষের দিকে চলে এসেছে। আইআইটি গুয়াহাটির গবেষকরা তাঁদের “সূত্র”; গাণিতিক মডেলেও ব্যাখ্যা করেছিলেন, জুনের শেষ থেকে সংক্রমণের গতি কমবে। অগস্টের মধ্যে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ইতি হবে। ভাইরাস সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও কমবে দেশে।
তবে এখানে আরও একটা প্রশ্ন মাথাচাড়া দিয়েছে। কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের চোখ রাঙানি কমছে ঠিকই, কিন্তু একই সঙ্গে তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার সম্ভাবনাও প্রবল হচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোভিডের এই ধাক্কা আরও সাঙ্ঘাতিক হতে পারে। কারণ এখন করোনার আরও কয়েকটি অতি সংক্রামক প্রজাতি ছড়িয়ে পড়েছে দেশে। যার মধ্যে প্রথমেই রয়েছে ডেল্টা প্রজাতি। এই ডেল্টা প্রজাতির একটি সংক্রামক ভাইরাল স্ট্রেন ডেল্টা-প্লাস ঘুম উড়িয়ে দিয়েছে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের। গবেষণা বলছে, এই প্রজাতি করোনার মিউট্যান্ট বা জিনগতভাবে পরিবর্তিত স্ট্রেনগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি উদ্বেগজনক। এটি যেমন দ্রুত ছড়াতে পারে, তেমনি রূপও বদলাতে পারে। তাই কোভিডের তৃতীয় ঢেউয়ের জন্য এই সংক্রামক প্রজাতিই দায়ী হতে চলেছে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের।
স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানাচ্ছে, ভারত ছাড়াও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, পর্তুগাল, সুইৎজারল্যান্ড, জাপান, পোল্যান্ড, নেপাল, চিন ও রাশিয়ায় ডেল্টা প্রজাতিদের দেখা মিলেছে। ভারতের মহারাষ্ট্রের জলগাঁও ও রত্নগিরিতে ১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে এই প্রজাতির খোঁজ মিলেছে। আজ দেখা গেছে এই সংখ্যাটা বেড়ে ২১ হয়েছে। তাছাড়া কেরল ও মধ্যপ্রদেশেও কোভিডের এই সুপার-স্প্রেডার প্রজাতিরা ছড়িয়ে পড়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ই ডেল্টা প্রজাতিরা এসেছে সার্স-কভ-২ ভাইরাসের বি.১ প্রজাতি থেকে। ভাইরোলজিস্টরা মনে করছেন, ১২ বার জিনের গঠন বদলেছে এই প্রজাতি, তাই এত বেশি সংক্রামক।
তবে আশার কথা হল ভ্যাকসিনে এই প্রজাতিকে কাবু করা যাবে বলেই ভরসা দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। গতকালের বৈঠকেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ বলেছিলেন, কোভিশিল্ড ও দেশের তৈরি কোভ্যাক্সিন এই প্রজাতির সংক্রমণ ঠেকাতে পারবে। তাছাড়া রুশ টিকা স্পুটনিক ভি দেওয়াও শুরু হয়েছে। ভ্যাকসিন ডেল্টা প্লাসকে কতটা ঠেকিয়ে রাখতে পারে, সেটাই এখন দেখার।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

দেড় বছরের শিশুকে অপহরণ করে ধর্ষণ, গ্রেফতার অভিযুক্ত । এম ভারত নিউজ

একরত্তি শিশুকে অপহরণ করে নারকীয় অত্যাচার চলল উত্তরপ্রদেশে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বহরাইচ জেলার কোতয়ালি নানপাড়া এলাকায়। দেড় বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে এক ব্যক্তিকে। জানা যাচ্ছে, ওই শিশুটি মায়ের পাশেই ঘুমোচ্ছিল। তখনই সেখান থেকে তাকে অপহরণ করে ওই ব্যাক্তি। এরপর গ্রামেরই একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়ে গিয়ে […]

Subscribe US Now

error: Content Protected