‘আমফান’ থেকেই শিক্ষা, ‘যশে’র জন্য প্রস্তুত বাংলা । এম ভারত নিউজ

user
0 0
Read Time:3 Minute, 51 Second

আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝিতেই, বুধবারে হানা দিতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় যশ। সম্ভবত দীঘার উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে এই ভয়ঙ্কর সাইক্লোন। ২২মে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে উত্তর আন্দামান সাগরের উপর। তার পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই গতিবেগ বৃদ্ধি করে এটি একটি ভয়ঙ্কর সাইক্লোনের রূপ নিতে চলেছে। আজ আমফানের বর্ষপূর্তি।গত বছর আজকের দিনেই আমফানের ভয়াবহ তান্ডব লীলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল গোটা পশ্চিমবঙ্গ।তাই এবার আর একই ভুল নয় আমফানের প্রভাব থেকে শিক্ষা লাভ করে যশের জন্য আগাম প্রস্তুত পশ্চিমবঙ্গ সরকার। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে সহযোগিতা না পেলেও যশ মোকাবিলার জন্য সম্পূর্ণ ভাবে তৈরি পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ২৬শে মে পশ্চিমবঙ্গ এবং উড়িষ্যা উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে এই সাইক্লোন। ঝড়ের গতিবেগ বৃদ্ধি সঙ্গে সঙ্গেই বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা বাড়বে বলেই জানানো যাচ্ছে এখনও পর্যন্ত। পাশাপাশি আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে আগামী ২৪ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত বৃষ্টিপাত দেখা যাবে গোটা রাজ্য জুড়ে। রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঝড়ের তীব্র প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা থাকায় ইতিমধ্যেই রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে , উপকূলবর্তী এলাকার জেলা আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠকে বসেছিলেন। আগামীকাল থেকেই যশ মোকাবেলার প্রস্তুতি শুরু হতে চলেছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে যে সমস্ত সর্তকতা অবলম্বন করা হয়েছে সেগুলি হল;

১) রাজ্যের বিভিন্ন পাম্পিং স্টেশন গুলিতে ২৪ ঘন্টার জন্য বহাল রাখা হবে কর্মীদের।

২) বাতিল করা হয়েছে সমস্ত সরকারি কর্মীদের ছুটি।৭৪ টি পাম্পিং স্টেশন জরুরী তৎপরতা দেখানো হচ্ছে।

৩) কলকাতা পুরসভার ১৬০ জন কর্মীকে নিয়ে একটি ডিউটি রোস্টারের পূর্ণ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

৪) ঝরে পড়ে যাওয়া গাছ কাটা এবং গাছ সরানোর জন্য দুটি দলকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

৫) থাকছে দু’টি ক্রেন ও ২২টি হাইড্রোলিক ল্যাডার।

ইতিমধ্যেই মাইকিং- এর মাধ্যমে সর্তকতা জারি করা হয়েছে বিভিন্ন উপকূলবর্তী এলাকায় ।পাশাপাশি এলাকা পরিদর্শনে গেছেন সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা। ইতিমধ্যেই আজ আমতা বিধানসভায় একটি সেফ হোমের উদ্বোধনে গিয়ে রূপনারায়ন,মুন্ডেশ্বরী ও দামোদর শটকার্ট ক্যানেল এলাকার নদী ভাঙন খতিয়ে দেখেন আমতার বিধায়ক সুকান্ত পাল। এমনকি মৎস্যজীবীদেরও আগামী কয়েকদিনের জন্য সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

পিতৃহারা হলেন ভুবনেশ্বর কুমার । এম ভারত নিউজ

ক্যান্সারে কবলিত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ভুবনেশ্বর কুমারের বাবা তথা উত্তরপ্রদেশ পুলিশের প্রাক্তন কর্মী কিরণ পাল সিং। দেশজুড়ে চলছে মৃত্যুর মহা মিছিল আর তার মাঝেই পিতৃহারা হলেন ভুবনেশ্বর কুমার। আজ উত্তর প্রদেশেই নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ভারতীয় ডানহাতি ফাস্ট বোলার ভুবনেশ্বর কুমারের বাবা।মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল […]

Subscribe US Now

error: Content Protected