বিজেপিকে ‘শুভ অহংকার’ বার্তা মমতার । এম ভারত নিউজ

Mbharatuser
0 0
Read Time:2 Minute, 59 Second

মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশন শুরুর পরেই বিজেপিকে কার্যত এক হাত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম না করেই বিজেপিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “বিরোধীরা বিধানসভাকে বিধানসভা বলে মনেই করেন না। যখন ইচ্ছা হয়, তখন আসেন, যখন ইচ্ছা হয় না তখন আসেন না। এতে আমার মর্মবেদনা হয়, তবে খারাপ লাগে না।” এরপরেই উপনির্বাচনে জিতে আজ শপথ গ্রহণ করা নতুন বিধায়কদের তিনি শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, “আপনারা যাঁরা মানুষের ভোটে জিতে এসেছেন, তাঁদের অভিনন্দন। তবে মানুষের জন্য কাজ করতেই এখানে এসেছেন, সেটা মনে রাখবেন।” ভাষণ শেষেও বিজেপিকে কটাক্ষ করে মমতার বক্তব্য, “বিরোধীদের বলব শুভ বিজয়া, শুভ দীপাবলি, শুভ ছট পুজো এবং শুভ অহঙ্কার।”

মঙ্গলবার বক্তৃতার শুরুতেই এই বছরের পুজো নির্বিঘ্নে কেটেছে বলেই উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি তিনি বলেন, ছট পুজো এবং জগদ্ধাত্রী পুজোতেও এই শান্তি বজায় রাখতে হবে।নিজের বক্তৃতার মধ্যেই সরকারের বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক প্রকল্পের নানা পরিসংখ্যান তুলে ধরে মমতা বলেন, “দুয়ারে সরকার প্রকল্প সর্বত্র প্রশংসিত হয়েছে। বিশ্বের সেরা প্রকল্প হবে তা। তিন কোটি মানুষ এই ক্যাম্পে পৌঁছেছেন। ১৬ নভেম্বর থেকে ফের শুরু হবে দুয়ারে সরকার প্রকল্প। দুয়ারে রেশন প্রকল্পও শুরু হবে দুয়ারে রেশন প্রকল্প। লক্ষ্মীর ভান্ডারে উপকৃত হয়েছেন বহু মহিলা। শীঘ্রই শুরু হবে পাড়ায় পাড়ায় সমাধানের কাজ।স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ডে কয়েক লক্ষ ছাত্র-ছাত্রী উপকৃত হয়েছে।” মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশন কক্ষেই বিধায়ক হিসেবে শপথ নেন উপনির্বাচনে চার কেন্দ্রের জয়ী প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মণ্ডল, উদয়ন গুহ ও ব্রজকিশোর গোস্বামী। সব জল্পনা শেষে বিধানসভার অধ্যক্ষই তাঁদের শপথবাক্য পাঠ করান। মঙ্গলবার বেলা ১২টার কিছু পর শপথগ্রহণ করেন তৃণমূলের এই চার জয়ী প্রার্থীরা।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

জগদ্ধাত্রী পুজোয় শিথিল নৈশবিধি, নয়া নির্দেশিকা নবান্নর । এম ভারত নিউজ

জগদ্ধাত্রী পুজোয় করোনা বিধি নিষেধ নিয়ে চিন্তিত ছিলেন চন্দননগরবাসীরা। কিন্তু এবার সেই চিন্তা দূরীকরণে নামল রাজ্য সরকার। চন্দননগরের জগদ্ধাত্রী পুজোয় এই বছর থাকছে না নৈশ বিধি নিষেধ। এই মর্মেই জারি হল সরকারি নির্দেশিকা। আজ নবান্নের জারি করা একটি নির্দেশিকায় জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ১২ ও ১৩ই নভেম্বর রাত ১১টা থেকে ভোর […]

Subscribe US Now

error: Content Protected