রাজ্যে বিনিয়োগ টানতে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী । এম ভারত নিউজ

user
0 0
Read Time:3 Minute, 0 Second

নির্বাচনের আগেই রাজ্যে বিনিয়োগ টানতে পুরোদমে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, নিউটাউনের সিলিকন ভ্যালিতে ২০টি তথ্য প্রযুক্তি সংস্থাকে জমি দেওয়া হল। উইপ্রো আগেই জমি চেয়ে রাজ্যকে চিঠি দিয়েছে। সেই আবেদন মেনে তাদেরও জমি দেওয়া হচ্ছে। মমতার কথায়, ‘সিলিকন ভ্যালিতে একশো একর জমি দিয়েছিলাম। আরও একশো একর জমির দাবি এসেছিল। এই একশো একর জমিও দিয়ে দিলাম।” অন্যদিকে, একটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টার গড়ার জন্যে ইনফোসিসকে আহ্বান করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে ইনফোসিস সাড়া দিয়েছে বলেই দাবি মমতার। শিল্পের পাশাপাশি ওই এলাকায় নানা সহযোগী শিল্পও গড়ে উঠবে। এতে হাজার হাজার ছেলেমেয়ের কর্মসংস্থান হবে বলে দাবি তাঁর।

শুধু কলকাতা, নিউটাউন নয়। জলপাইগুড়িতে স্টার সিমেন্টকে জমি দেওয়া হয়েছে। সেখানে কারখানা গড়ে উঠলে স্থানীয়দের কর্মসংস্থান হবে বলে মত মুখ্যমন্ত্রীর। বাংলার যুব সম্প্রদায়ের জন্যে অনেক চাকরির বন্দোবস্ত হবে বলেই মত তাঁর। পাশাপাশি এদিন মমতার প্রশ্ন রাজ্যের যে প্রকল্প চলছে, তা বিজেপির কথায় করব কেন? কেন্দ্রীয় সরকার এজেন্সি দিয়ে প্রতিমুহূর্তে হয়রানি করে। রাজ্য সরকার কৃষকদের সব ব্যাপারে সাহায্য করে বলে দাবি করেন তিনি।

সেইসঙ্গে এদিন খাস নবান্নে বসেই নির্বাচনী প্রচার করে ফেলেন তিনি। এদিন তিনি বলেন, “আসন্ন নির্বাচনে ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বাংলার মানুষ বুঝিয়ে দেবে, বিজেপি তুমি তৈরি থেকো”। এদিন বিজেপি ছাড়াও সিপিএম এমনকি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের নাম করে তোপ দাগেন মমতা। তৃণমূলের আমফান দুর্নীতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমাদের সরকার যদি দুর্নীতি করে, তবে সিপিএমের আমলে কী হয়েছিল?। সিপিএমের লজ্জা থাকা উচিত তখন তো বুদ্ধবাবুও ছিলেন”। পিএম কেয়ার্সের টাকা কোথায় যাচ্ছে? এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপিকে আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

সমাধান সূত্র ছাড়াই দিল্লিতে শেষ বৈঠক, পরবর্তী বৈঠক ৩ ডিসেম্বর । এম ভারত নিউজ

দীর্ঘ প্রতীক্ষার বৈঠকেও মিলল না সমাধান সূত্র। কার্যত কোনও সমাধান সূত্র ছাড়াই শেষ হল কেন্দ্রীয় সরকার ও বিক্ষোভকারী কৃষকদের বৈঠক। মঙ্গলবার দীর্ঘ সময় ধরেই কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর, পীষূষ গোয়েলের সঙ্গে কথা বলেন বিক্ষোভকারী কৃষকদের ৩২টি সংগঠন। ইতিমধ্যে কৃষি আইনের বিরোধিতায় পথে নেমেছে ৫০০টি কৃষক সংগঠন। তাদের মধ্যে মাত্র […]

Subscribe US Now

error: Content Protected