‘দাড়ি নন, কর্মসংস্থান বাড়ান’ ১০০টাকা পাঠিয়ে মোদীকে আর্জি চা বিক্রেতার । এম ভারত নিউজ

user
0 0
Read Time:2 Minute, 36 Second

“দাড়ি কাটুন” এইকথা বলে নরেন্দ্র মোদীকে ১০০ টাকা পাঠালেন মুম্বাইয়ের চা ওয়ালা। তাঁর বক্তব্য দাড়ি নয়,টিকা উৎপাদনের হার এবং কাজের সুযোগ বাড়ানো উচিত প্রধানমন্ত্রীর। মুম্বাইয়ে ইন্দ্রপুর রোডে একটি বেসরকারি হাসপাতালের বাইরে চা বিক্রি করেন অনিল মোরে। তিনিই মানি অর্ডার করে দাড়ি কাটার জন্য ১০০টাকা পাঠিয়েছেন নরেন্দ্র মোদীকে। যদিও তাঁকে অসম্মান করার জন্য একাজ করেননি অনিল,এমনটা বারবার জানিয়েছেন নিজেই। অনিলের কথায়, ” প্রধানমন্ত্রী নিজের দাড়ি বাড়াচ্ছেন। যদি কিছু বাড়াতেই হয় তাহলে সেটা হওয়া উচিত দেশের কর্মসংস্থান। পাশাপাশি দেশে টিকাকরণের গতি বাড়ানো হোক। বাড়ানো হোক হাসপাতালের সংখ্যা। গত দুটো লকডাউনের ফলে সাধারণ মানুষকে যে দুর্দশার মধ্যে পড়তে হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর উচিত যাতে মানুষ এটা থেকে বেরিয়ে আসতে পারে সে চেষ্টা করা।”

তিনি আরও বলেন, “দেশে প্রধানমন্ত্রীর পদই যে সর্বোচ্চ তা জানি আমি।আমি ওঁকে একশো টাকা পাঠিয়েছি, যাতে উনি নিজের দাড়িটা কেটে ফেলেন। কিন্তু উনি আমাদের মহান নেতা। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা ও আস্থা রয়েছে। ওঁর অবমাননা করার কোনও ইচ্ছাই আমার নেই। কিন্তু যেভাবে অতিমারীর কবলে পড়ে দিনের পর দিন দেশের গরিবদের সমস্যা বেড়েই চলেছে, তাতে এভাবে ওঁর দৃষ্টি আকর্ষণ করা ছাড়া উপায় ছিল না।” এছাড়াও নরেন্দ্র মোদীকে লেখা চিঠিতে করোনায় মৃতদের পরিবারকে ৫লক্ষ টাকা এবং লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তদের ৩০ হাজার টাকা করে সাহায্য করার আবেদন জানিয়েছেন অনিল। কার্যতই এহেন চাঞ্চল্যকর কাজের জেরে এই মুহুর্তে নেটদুনিয়ায় আলোচনার অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছেন তিনি।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

নেশা করতে গিয়ে আগুন লাগল ফ্ল্যাটে, মাঝরাতে পালালেন যুবক । এম ভারত নিউজ

নেশা করতে গিয়ে ভোররাতে ফ্ল্যাটে লাগল আগুন। কিন্তু বাকিদের কথা না ভেবে প্রাণ বাঁচাতে চম্পট দিলেন যুবক। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে হরিদেবপুর থানার সোদপুরের মতিলাল গুপ্ত রোডের একটি আবাসনে। বৃহস্পতিবার ভোরে ওই আবাসনের একটি ফ্ল্যাটের ব্যালকনি থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখেন স্থানীয়রা। তক্ষুণি তাঁরা খবর দেন আবাসনের বাসিন্দাদের। আতঙ্কিত বাসিন্দারা বেরিয়ে […]

Subscribe US Now

error: Content Protected