অতিরিক্ত অর্থ চাইল রাজভবন, দিতে নারাজ নবান্ন । এম ভারত নিউজ

user
0 0
Read Time:2 Minute, 4 Second

করোনার আঁচ এবার খাস রাজভবনের হেঁশেল। অন্তর্বর্তী ব্যয়ের জন্য অতিরিক্ত অর্থ চাওয়া হলেও অতিমারীর জেরে ব্যয় সঙ্কোচের কারণে তা সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দিল নবান্ন। রাজ্যপালের ‘হাউজহোল্ড’ বা গৃহস্থালি খাতে বরাদ্দ অর্থ কার্যত শেষ হয়ে গিয়েছে। সংসার খরচ সামলাতে নবান্নের কাছে তিনটি খাতে অতিরিক্ত ৫৩.৫ লক্ষ টাকা চেয়ে পাঠিয়েছিলেন রাজ্যপালের সচিব সতীশ তেওয়ারি। তবে নবান্নের তরফে চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়েছে যে, করোনা আবহে যেখানে ব্যয় সংকোচনের পথে হাঁটছে সরকার সেখানে কোনও দফতরকেই অতিরিক্ত বরাদ্দ করা সম্ভব হচ্ছে না। নবান্নের এই চিঠি পাওয়ার পর কার্যত মাথায় হাত রাজভবনের। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে রাজভবনের জন্য ১৬.৫ কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ করে রাজ্য সরকার। তবে কোভিডের জেরে
অর্থ দফতর বেতন-পেনশন ছাড়া সব খাতের খরচ ৫০% ছাঁটাই করেছে।

বাদ যায়নি রাজভবনও। জানা গিয়েছে, রাজ্যপালের গৃহস্থালি পরিচালনা, বিনোদন এবং অন্যান্য চুক্তিভিত্তিক খাতে ব্যয়ের জন্য ৮৭,৬২,০০০ টাকা চেয়েছিল রাজভবন। ব্যয় সঙ্কোচের ফলে বরাদ্দ কমলেও ৩৪ লক্ষ টাকা পাওনা বলে নবান্নকে চিঠিতে উল্লেখ করা হলেও টাকা দেওয়া সম্ভব নয় বলেই জানানো হয়েছে নবান্নের তরফে। এ বিষয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের দাবি, বেশ কিছু মাস ধরেই রাজভবনের প্রতি নেতিবাচক আচরণ করা হচ্ছে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় মদের দোকান খোলায় বিপত্তি । এম ভারত নিউজ

জনবহুল এলাকায় মদের দোকান খোলাকে কেন্দ্র করে উওপ্ত পূর্ব মেদিনীপুরের মারিশদার পাঁচবেড়িয়া এলাকা। স্থানীয়দের অভিযোগ, জনবহুল এলাকায় লাইসেন্সপ্রাপ্ত ওই মদের দোকান খোলায় পড়ুয়া থেকে মহিলাদের কটুক্তি করে মদ্যপরা। বারংবার দোকান মালিককে দোকান বন্ধের দাবি জানালেন কর্ণপাত করেনি মালিক। আর তাই বাধ্য হয়ে সোমবার দুপুরে গ্রামবাসীরা একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ দেখায়। তখনই […]

Subscribe US Now

error: Content Protected