কলকাতা মেট্রোর সাথে হাত মেলালো বন্ধন ব্যাংক । এম ভারত নিউজ

user
0 0
Read Time:2 Minute, 58 Second

কলকাতাবাসীর দৈনন্দিন জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের সাথে জুড়তে চলেছে বন্ধন ব্যাংক । আজ ই একথা ঘোষণা করা হয় যে, কলকাতা মেট্রোর যাত্রীদের জন্য যে স্মার্ট কার্ড ইস্যু করা হবে তাতে বন্ধন ব্যাঙ্কের লোগো দেখা যাবে।

বিগত চল্লিশ বছরে এরকম ভাবে কোনো ব্যাংকের সাথে মেট্রোর সুযোগ সুবিধা দেখা যায়নি। মেট্রো রেল ১৯৮৪ সালে চালু হওয়ার পর , আস্তে আস্তে কলকাতার সাধারন মানুষের নিত্যনৈমিত্তিক জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হয়ে দাড়িয়েছে । অন্যদিকে ২০১৫ সালে উদ্বোধন হওয়ার পর থেকে বন্ধন ব্যাংক নিজের আয়ত্তের এলাকা বাড়াতে বাড়াতে এখন একটি সর্বভারতীয় ব্যাংকে পরিণত হয়েছে। যদিও এই ব্যাংকের ইতিহাস ঘেটে দেখলে দেখা যাবে যে এটি স্বাধীনতার পর পূর্ব ভারতে প্রতিষ্ঠিত প্রথম ব্যাংক। কলকাতা মেট্রোর প্রথম স্মার্ট কার্ড ২০১১ সালে চালু হয়ার পর বর্তমানে প্রায় লক্ষাধিক লোক যাতায়াতের জন্য মেট্রো কার্ড ব্যবহার করছেন।

এই প্রসঙ্গে বন্ধন ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সি ই ও চন্দ্রশেখর ঘোষ, বলেন, “আমরা কলকাতা মেট্রোর সঙ্গী হতে পেরে নিজেদের সৌভাগ্যবান মনে করছি। কলকাতার প্রত্যেকটি নাগরিক এই মেট্রো নিয়ে গর্বিত, যা দেশের প্রথম মেট্রো এবং ‘সিটি অফ জয়’ এর প্রাণ। বন্ধন ব্যাংকের এই মাটিতেই জন্ম এবং এখন সারা দেশেই আমাদের উপস্থিতি। আমি নিশ্চিত এই শহরের নাগরিকরা তাঁদের দুই প্রিয় ব্র্যান্ডের জুটি বাঁধার খবর পেয়ে খুশি হবেন। স্মার্ট কার্ডের এই ব্র্যান্ডিঙের ফলে অনেক বেশি মানুষ আমাদের উপস্থিতি সম্পর্কে সচেতন হবেন। আমরা খুশি যে কলকাতা মেট্রো তার সর্বপ্রথম পার্টনারশিপ ফরম্যাটে সঙ্গী হওয়ার জন্য আমাদের নির্বাচন করেছে।” মেট্রো রেলওয়ের ম্যানেজার মনোজ যোশীও তার উৎসাহ প্রকাশ করে বলেন, “মেট্রো রেলওয়ে, কলকাতার পক্ষ থেকে আমি বন্ধন ব্যাঙ্ককে তাদের সমস্ত প্রচেষ্টার জন্য শুভকামনা জানাই।”

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

অরাজনৈতিক ব্যানারে খেজুরি দিবস পালন শুভেন্দুর । এম ভারত নিউজ

অরাজনৈতিক ব্যানারে খেজুরি দিবস পালন করলেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। ২০১০ সালে এলাকা দখলকে ঘিরে সিপিএম এবং তৃণমূলের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরি। প্রাণ হারিয়েছিলেন বহু মানুষ। ওই বছরের ২৪ নভেম্বর খেজুরিতে শান্তি ফিরেছিল। সেই স্মৃতিতে প্রতিবছর খেজুরি দিবস পালন করে তৃণমূল। তবে এই প্রথম একেবারে অরাজনৈতিক ব্যানারে […]

Subscribe US Now

error: Content Protected