ইথিওপয়ায় চলছে বিদ্রোহ ! সরকার হিসাবে স্বীকৃতি চায় বিদ্রোহীরা । এম ভারত নিউজ

user
0 0
Read Time:2 Minute, 49 Second

ইথিওপিয়ার ট্রিগ্রায় অঞ্চলের বিদ্রোহীরা বলেছেন যে কোনও যুদ্ধবিরতি গ্রহণ করার আগে তাদের অবশ্যই আইনত সরকার হিসাবে স্বীকৃতি দিতে হবে। দীর্ঘ তালিকার ইরিট্রিয়ান সেনা প্রত্যাহার করা ছিল অন্য শর্ত। এর আগে অ্যাডিস আবাবার কর্তৃপক্ষ একতরফা যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল যেহেতু সরকারী কর্মকর্তারা পালিয়ে যাওয়ার কারণে বিদ্রোহীরা ওই অঞ্চলের বেশিরভাগ অংশ পুনরধিকার করে।বিদ্রোহী ও সরকারী বাহিনীর মধ্যে আট মাসের লড়াইয়ে হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। জাতিসংঘ বলছে, দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে আরও ১.৮ মিলিয়ন জনগোষ্ঠীর প্রায় দুই মিলিয়নেরও বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে এবং ৪০০,০০০ এখন দুর্ভিক্ষে আক্রান্ত হয়েছে।

টিগ্রায় পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট (টিপিএলএফ) বিদ্রোহীরা প্রথমে ইথিওপিয়ার সরকারের যুদ্ধবিরতিকে “রসিকতা” হিসাবে বর্ণনা করেছে এবং অঞ্চল থেকে তাদের “শত্রুদের” তাড়িয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ইরিপিরিয়ার সেনা এবং ইথিওপিয়ার সমর্থক সরকারী বাহিনী ইথিওপিয়ার আমহার অঞ্চল থেকে টিগ্রায়ের দক্ষিণে। তবে তারা এখন যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হওয়ার জন্য পূর্ব শর্তগুলির দীর্ঘ তালিকা তৈরি করেছে, যার মধ্যে রয়েছে অভিযোগযুক্ত যুদ্ধাপরাধের বিষয়ে স্বাধীন তদন্ত, মানবিক সহায়তা সরবরাহ এবং বিদ্যুতের মতো প্রাথমিক পরিষেবা পুনরুদ্ধার।


রবিবার “টিগ্রায়ের সরকার” স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “দ্বিতীয় দফা আক্রমণে যতক্ষণ না আমাদের জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত হচ্ছে ততক্ষণ আমরা আপস করবো না, আমরা নীতিগতভাবেই যুদ্ধবিরতি গ্রহণ করব। সংঘাতের সব পক্ষের বিরুদ্ধে গণহত্যা চালানো এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন করার অভিযোগ আনা হয়েছে। শুক্রবার কয়েক হাজার বন্দী ইথিওপীয় সৈন্যকে মেকেলের রাস্তায় পেরেড করানো হয়েছিল।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

অনলাইন পড়াশোনার সুবিধার্থে এগিয়ে এল KP, CRY ও Airte l এম ভারত নিউজ

সাম্প্রতিক করোনা পরিস্থিতি দেশের শিক্ষাব্যবস্থার ওপর বড়োরকমের থাবা বসিয়েছে, যার জেরে গত বছর মার্চ মাস থেকে বন্ধ রয়েছে সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এই বছরের গোড়ার দিকে সামান্য কয়েক দিনের জন্য কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের দরুন তা আবার বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় সরকার। ফলে গত এক বছর ধরে অনলাইনেই […]
kolkata_41

Subscribe US Now

error: Content Protected